রবিবার, ২০ জুন ২০২১, ০৬:৫৭ পূর্বাহ্ন

ইমামকে পেটালেন আওয়ামী লীগ নেতা

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:
  • আপডেট সময় সোমবার, ৩১ মে, ২০২১
  • ২৪

সুনামগঞ্জ ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি সদস্য হাসান আলীর বিরুদ্ধে মাদকাসক্ত অবস্থায় তাহিরপুরে মসজিদের এক ইমামকে পেটানোর অভিযোগ উঠেছে। এদিকে এ ঘটনায় বিচার ও তাকে দল থেকে বহিস্কারের দাবিতে স্থানীয়রা প্রতিবাদ সমাবেশ ও মিছিল করেছেন।

রোববার (৩০ মে) দুপুরের দিকে চাঁরাগাঁও সীমান্ত সড়কের ওপর গাড়ি থামিয়ে তিনি মসজিদের ইমামকে মারধর করেন বলে জানা যায়।

হাসান উপজেলার উওর শ্রীপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও ওই ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য।

এর আগে একই দিন একটি সালিস বৈঠকে মাদকাসক্ত অবস্থায় প্রবেশ ও উল্টোপাল্টা কথা বলা অবস্থায় ওই ইউপি সদসস্যের একটি ভিডিও চিত্র ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে।

জানা যায়, উপজেলার চারাগাঁও কলাগাঁও বাঁশতলা সীমান্ত এলাকায় কথিত একটি মাজারে করোনাকালীন সময়ে গান বাজনার আয়োজন বন্ধে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আমির উদ্দিনের সভাপতিত্বে জঙ্গলবাড়ি মোড়ে সালিস বৈঠক বসে। এসময় মাদকাসক্ত অবস্থায় হাসান সেখানে প্রবেশ করেন ও বেসামাল কথাবার্তা বললে তাকে সেখান থেকে বের করে দেয়া হয়।

এদিকে এ সালিস শেষে মসজিদের ইমাম মাওলানা ওমর ফারুক তার ভগ্নিপতিকে সঙ্গে নিয়ে নিজ বাড়ি বাঁশতলায় ফেরার পথে তাদের মোটরসাইকেলটি থামান হাসান। পরে ইমামকে মারধর করেন তিনি।

ভুক্তভোগী মাওলানা ওমর ফারুক বলেন, মাদকাসক্ত অবস্থায় হাসান মেম্বর আমাকে কিল-ঘুষি দিয়ে মারধর করেন। এমনকি আমার ভগ্নিপতি জালালকেও মারধর করেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, হাসপাতালে গেলে অথবা এ ব্যাপারে থানায় মামলা করতে গেলে হেফাজতের নেতা বানিয়ে আমাকে মামলায় ফাঁসিয়ে দেয়ার হুমকি দেন ইউপি সদস্যের লোকজন।

উপজেলার সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আমির উদ্দিন জানান, এ ঘটনায় দলীয় ভাবমুর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে। একজন নিরীহ ইমামকে মাদকাসক্ত হয়ে মারধর করায় এলাকার লোকজনের মধ্যে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

আরো পড়ুন
রকেট নির্মাণ শুরু করেছে হামাস
নাইজেরিয়ায় দুই শতাধিক শিক্ষার্থীকে অপহরণ
https://www.youtube.com/watch?v=JXue3HqXvoA&ab_channel=SajidMohammadSajidMohammad

শেয়ার করুন

আরো খবর