শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:০১ পূর্বাহ্ন

ধর্ষণের কোনো আলামতই পায় না হাসপাতাল!

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় শনিবার, ৮ জানুয়ারী, ২০২২
  • ২৬
ধর্ষণের কোনো আলামতই পায় না হাসপাতাল!
প্রতীকী ছবি

বাক প্রতিবন্ধী, আবার শারীরিকভাবেও প্রতিবন্ধী ১৮ বছরের তরুণীকে ধর্ষণ করেছে নেশাগ্রস্ত যুবক। এমন অভিযোগ ওঠে সুনামগঞ্জের ধর্মপাশার পল্লীতে।

বিষয়টি পুলিশকে জানালে পুলিশ মামলা করতে হলে ডাক্তারি পরীক্ষা করিয়ে আনার কথা বলে। ১২ ডিসেম্বরের ঘটনা এটি। পরিবারের লোকজন ১৪ ডিসেম্বর দুপুর ১২টায় সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যান প্রতিবন্ধী ওই তরুণীকে।

২৩ ডিসেম্বর হাসপাতাল থেকে দেওয়া (১৮ ডিসেম্বর তারিখ উল্লেখ করে) লিখিত রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়, ডাক্তারি পরীক্ষায় ধর্ষণের কোনো আলামত পাওয়া যায়নি।

মেয়েটির গ্রামের মসজিদের ইমাম মো. কামরুজ্জামান বলেন, মেয়েটি ইশারায়ও কথা বলতে পারে না। ঘটনার পর সবাই জড়ো হয়েছেন, আমিও গিয়েছি, আলামত দেখে হাটির সকলেই বলেছেন, ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর সীমান্তের আদিবাসী পল্লীর নববিবাহিত তরুণী (২৩) পাহাড়ি ছড়ায় গোসল করতে গিয়ে ১৪ আগস্ট ধর্ষণের শিকার হন। ওই দিনই তরুণীর মা তাহিরপুর থানায় মামলা (নম্বর-জিআর ১২/২১২) করেন। পরদিন ১৫ আগস্ট ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে আসেন ওই তরুণী।

তাহিরপুর থানা পুলিশের তদন্তকারী কর্মকর্তা আবু বকর সিদ্দিক মেডিকেল রিপোর্টে নেগেটিভ আসার কথা উল্লেখ করে ‘ধর্ষণ নয়, ধর্ষণের চেষ্টা’র কথা উল্লেখ করে আদালতে ২১ সেপ্টেম্বর অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

আরও পড়ুন : করোনা বাড়ছে বরিশাল বিভাগে

শেয়ার করুন

আরো খবর