সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ০২:৪৬ অপরাহ্ন

ইস্তাম্বুলে বিস্ফোরণের ঘটনায় এক জন গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় সোমবার, ১৪ নভেম্বর, ২০২২
  • ২৩

তুরস্কের ইস্তাম্বুলে বিস্ফোরণে ছয়জন নিহত হওয়ার ঘটনায় এক সন্দেহভাজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুলেইমান সোয়লু এ তথ্য নিশ্চিত করেন। এ বিস্ফোরণের জন্য কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টিকে (পিকেকে) দায়ী করেছেন তিনি। খবর বিবিসির।

আরও পড়ুনঃজন্মলগ্ন থেকেই যুবলীগ আত্মনিয়োগ করে দেশ গঠনে: প্রধানমন্ত্রী

তুরস্কের ইস্তাম্বুল শহরের গভর্নর আলি ইয়েরলিকায়া বলেন, গতকাল রোববার তাকসিম স্কয়ার এলাকায় বিকেল ৪টা ২০ মিনিটের দিকে বিস্ফোরণের ঘটনায় কমপক্ষে ৬ জন নিহত হন, আহত হয়েছেন ৮১ জন। তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান এ বিস্ফোরণকে ‘ঘৃণ্য হামলা’ উল্লেখ করে বলেন, ‘বাতাসে সন্ত্রাসের গন্ধ ভেসে বেড়াচ্ছে।’ দোষী ব্যক্তিদের সাজার মুখোমুখি করা হবে বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি।

তুরস্কের আইনমন্ত্রী বেকির বোজদাগ স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে বলেন, বিস্ফোরণের আগে ওই এলাকায় থাকা একটি বেঞ্চে এক নারী ৪০ মিনিটের বেশি সময় ধরে বসে ছিলেন। তিনি সেখান থেকে উঠে যাওয়ার কয়েক মিনিটের মাথায় বিস্ফোরণ হয়।

আজ সোমবার সকালে তুরস্কের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুলেইমান সোয়লু বলেন, পুলিশ এক সন্দেহভাজনকে গ্রেপ্তার করেছে। ধারণা করা হচ্ছে, ওই ব্যক্তিই ঘটনাস্থলে বোমা ফেলে গিয়েছিলেন।

এখন পর্যন্ত এ বিস্ফোরণের ঘটনায় কেউ দায় স্বীকার করেনি। তবে এ ঘটনায় কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টিকে (পিকেকে) দায়ী করেছেন সুলেইমান সোয়লু।

সশস্ত্র গোষ্ঠী পিকেকে তুরস্কের ভেতরে স্বাধীন কুর্দি রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করতে চায়। ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং যুক্তরাষ্ট্র একে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে আখ্যা দিয়েছে।

বিবিসি বলেছে, বিস্ফোরণস্থল এলাকায় ব্যাপক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পুলিশ এলাকাটি ঘিরে রেখেছে। সেখানে অ্যাম্বুলেন্স আসা-যাওয়া করছে। আকাশে হেলিকপ্টার টহল দিচ্ছে। ওই সড়কের দোকানিরা দোকানপাট বন্ধ করে দিয়েছেন।

আরও পড়ুনঃশপথ পড়ালেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানদের -প্রধানমন্ত্রী

শেয়ার করুন

আরো খবর