সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ০৯:৪৩ অপরাহ্ন

খুলছে না রাজধানীর ঐতিহ্যবাহী নিউ মার্কেট

নিজস্ব প্রতিবেদক:
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ৮ মে, ২০২০
  • ৯১

সরকার অনুমতি দিলেও ঈদুল ফিতরের আগে খুলছে না রাজধানীর ঐতিহ্যবাহী নিউ মার্কেট। দোকান খোলা নিয়ে নিউ মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতি ও নিউ মার্কেট দোকান মালিক সমিতির ভার্চুয়াল মিটিং অনুষ্ঠিত হয়। তাতে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় ঢাকা নিউ মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতি‌র কার্যনির্বাহী কমিটির সভাপতি ডা. দেওয়ান আমিনুল ইসলাম শাহীন ও সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল হক এক যৌথ বিবৃতিতে এমন সিদ্ধান্তের কথা জানান।

বিবৃতিতে বলা হয়, বর্তমান করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি ও মার্কেট খোলার বিষয়ে সরকারি বিধিনিষেধ পর্যালোচনা করে ঢাকা নিউ মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতি‌র কার্যনির্বাহী কমিটি এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয় যে, আসন্ন ঈদুল ফিতর পর্যন্ত ঢাকা নিউ মার্কেট সম্পূর্ণরূপে বন্ধ থাকবে।

এর আগে রাজধানীর প্রধান দুটি শপিং মল যমুনা ফিউচার পার্ক এবং বসুন্ধরা সিটি ঈদের আগে না খোলার সিদ্ধান্ত নেয়। এছাড়া ঢাকার বাইরে কুমিল্লা-সিলেটসহ বিভিন্ন জায়গায় মালিক সমিতি ঈদের আগে মার্কেট না খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

মিটিংয়ে মূলত কয়েকটি কারণে দোকান খোলার সিদ্ধান্ত নেয়নি সমিতি। এর মধ্যে অন্যতম গণপরিবহন বন্ধ থাকা। পরিবহন না খুললে দূর থেকে ক্রেতারা নিউ মার্কেট যাতায়াত করতে পারবেন না। এতে বেচাকেনা হবে কম।

তবে খোলার বিষয়টি পর্যবেক্ষণে রাখছে সমিতি।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ যদি বাড়তে থাকে তবে দোকান মোটেই খোলা হবে না। একইভাবে নিউ মার্কেটের আশপাশের মার্কেটও পর্যবেক্ষণ করবে তারা। এজন্য আরো কিছুদিন পর্যন্ত অপেক্ষা করবে তারা।

নিউ মার্কেট দোকান মালিক সমিতির সভাপতি আশরাফ উদ্দিন বলেন, পরিবহন বন্ধ, আমরা দোকান খুলে কি করবো। পরিবহন বন্ধ থাকলে মিরপুরের একজন ক্রেতা দোকানে আসতে পারবেন না। সংক্রামণ বাড়তে থাকলে দোকান খুলে কি করবো।

তিনি বলেন, আমার একজন দোকানি যদি আক্রান্ত হয় এই দায়ভার কে নেবে। তার পরও সংক্রমণ যদি কমতে থাকে এবং নিউ মার্কেটের আশপাশের দোকান খুলে দেয় তখন ভেবে দেখা যাবে।

করোনা ভাইরাসের কারণে গত ২৬শে মার্চ থেকে শুরু হওয়া সাধারণ ছুটিতে দোকানপাট ও বিপণিবিতান বন্ধ রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত সোমবার ঈদের কেনাকাটার জন্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিতভাবে দোকানপাট খোলা হবে বলে জানান। এরপর ১০ই মে থেকে বিপণিবিতান খুলে দেয়ার আনুষ্ঠানিক নির্দেশনা দেয়া হয়।

এদিকে বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি মো. হেলাল উদ্দিন বলেন, যারা পর্যাপ্ত সুরক্ষা ব্যবস্থা রাখতে পারবে না বলে মনে করছে, তারা বিপণিবিতান খুলবে না। এটা আমরা বলে দিয়েছি।

শেয়ার করুন

আরো খবর