বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ০৭:২২ অপরাহ্ন

ঢাবির হলে চাকরিজীবী ছাত্রলীগ নেতার এসি বিলাস!

অনলাইন ডেস্ক:
  • আপডেট সময় শনিবার, ১ অক্টোবর, ২০২২
  • ৩৭
ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়ের সঙ্গে এস এম রিয়াদ হাসান

গঠনতন্ত্র অনুযায়ী, সরকারি চাকরিজীবীরা ছাত্রলীগের রাজনীতিতে যুক্ত থাকতে পারবেন না। তবে গঠনতন্ত্রের নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করেই ঐতিহ্যবাহী এ সংগঠনটির সহ-সভাপতি পদে বহাল তবিয়তে রয়েছেন এস এম রিয়াদ হাসান। এমনকি সরকারি চাকরি পাওয়ার পরও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হলে অবৈধভাবে থাকছেন তিনি। টিভি, রেফ্রিজারেটর, এয়ারকুলারসহ হলে আয়েশি জীবন কাটাচ্ছেন এ ছাত্রলীগ নেতা।

অভিযোগ উঠেছে, সরকারি চাকরি পাওয়ার পরও ছাত্রলীগের উপ-সাহিত্য সম্পাদক এস এম রিয়াদ হাসানকে সহ-সভাপতি হিসেবে পদোন্নতি দিয়েছেন সংগঠনটির সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য। সরকারি চাকরিজীবী হওয়ার পর তাকে পদ থেকে অব্যাহতি না দিয়ে উল্টো পদোন্নতি দেওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির নেতারা৷ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও এ নিয়ে সমালোচনামূলক পোস্ট করেছেন অনেকেই।

বৃহস্পতিবার ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত একটি চিঠির মাধ্যমে বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে। সেখানে তারিখ উল্লেখ করা ছিল ৩১ জুলাই ২০২২। সম্প্রতি রিয়াদ শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প ফাউন্ডেশনে সহকারী ব্যবস্থাপক হিসেবে যোগ দিয়েছেন। তবে তার চাকরিপ্রাপ্তির তারিখ ছিল এ বছরের ৫ জুলাই।

আরো পড়ুন: ইউক্রেনের পরমাণু কেন্দ্রের প্রধানকে আটক করেছে রাশিয়া

শেয়ার করুন

আরো খবর