রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ০৫:১৩ অপরাহ্ন

দেশে প্রথম রেমদেসিভির উৎপাদন করেছে বেক্সিমকো

নিজস্ব প্রতিবেদক:
  • আপডেট সময় শনিবার, ৯ মে, ২০২০
  • ১৪৮

করোনা চিকিৎসায় কার্যকর রেমদেসিভির জেনেরিক ওষুধ দেশে প্রথম উৎপাদন করেছে বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড। প্রতিষ্ঠানটির এক প্রেসনোটে বলা হয়, অনেক আগেই বেক্সিমকো এই ওষুধ উৎপাদন করলেও জনমনে বিভ্রান্তি এড়াতে ঘোষণা দেয়া থেকে বিরত থাকে।

প্রেস নোটে বলা হয়, ৮ই মে  ডেইলি স্টার ও প্রথম আলো পত্রিকার অনলাইন সংস্করণ ও পরদিন ছাপা সংস্করণে প্রকাশিত করোনা চিকিৎসায় দেশে প্রথম রেমডেসিভির উৎপাদন করল এসকেএফ’ শীর্ষক সংবাদ বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড-এর দৃষ্টিগোচরে এসেছে। সংবাদে উল্লেখ করা হয় যে, শুক্রবার থেকেই রেমদেসিভির ওষুধ সরবরাহ করার প্রস্তুতি শুরু করেছে এসকেএফ। একই সংবাদ অন্যান্য গণমাধ্যমও পুনঃপ্রকাশ করেছে। আমরা মনে করি এই সংবাদ প্রতিবেদন বিভ্রান্তিকর ও তথ্যগতভাবে ভুল।

বেক্সিমকোর প্রেস নোটে বলা হয়, আমরা স্পষ্টভাবে বলতে চাই যে, বাংলাদেশে বেক্সিমকো ফার্মাই প্রথম এই জেনেরিক ওষুধ উৎপাদন করেছে। শুধু তা-ই নয়, বেক্সিমকো ফার্মাই প্রথম ও এখন পর্যন্ত একমাত্র কোম্পানি যারা ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরে (ডিজিডিএ) পরীক্ষা ও অনুমোদনের জন্য এই জেনেরিক ওষুধের চূড়ান্ত নমুনা জমা দিয়েছে।

এই ওষুধ উৎপাদনের পর সকল প্রয়োজনীয় অভ্যন্তরীণ পরীক্ষা সফলভাবে সম্পন্ন করার পর ৭ই মে ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরে পরীক্ষা ও অনুমোদনের জন্য চূড়ান্ত নমুনা জমা দেয় বেক্সিমকো ফার্মা। কোনো কোম্পানি বাংলাদেশ বা বিশ্বজুড়ে কোনো ওষুধ সরবরাহ করার আগে এই অনুমোদন গ্রহণের বিষয়টি আইনগতভাবে বাধ্যতামূলক।

অনেক আগে রেমদেসিভির উৎপাদন করলেও এর ঘোষণা দেওয়া থেকে বিরত থাকে বেক্সিমকো ফার্মা, কেননা আমরা মনে করেছি যে, নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ কর্তৃক যাচাইবাছাই ও কার্যকারিতার পরীক্ষা সম্পন্ন হওয়ার আগে এ ধরণের ঘোষণা দায়িত্বজ্ঞানহীন ও অনৈতিক হতো; পাশাপাশি জনগণকেও বিভ্রান্ত করতো।
সামগ্রিক বিষয়টি স্পষ্ট করতে ও উপরেল্লেখিত সংবাদের কারণে সৃষ্ট সম্ভাব্য বিভ্রান্তি দূর করতে, বৃহত্তর জনস্বার্থে আমরা এই প্রেস নোট প্রকাশ করছি।

শেয়ার করুন

আরো খবর