বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ০১:০১ অপরাহ্ন

ফুটবলটাকে মিস করছি

নিউজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় রবিবার, ৩ মে, ২০২০
  • ১১০

তিনি আলোচিত, তিনি সমালোচিত। সমালোচনার শিকার হন সারাক্ষণ সংবাদমাধ্যমে আলোড়ন তোলা বক্তব্য দিয়ে। প্রতিদ্বন্দ্বী কোচদের সঙ্গে কথার লড়াইয়ে অংশ নিয়ে। আর আলোচিত তার সাফল্যের কারণে। নিজ দেশ পর্তুগাল ছাড়াও লিগ জিতেছেন স্পেন, ইতালি ও ইংল্যান্ডে। জিতেছেন তিনটি ভিন্ন দেশের ক্লাবের হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপাও। বর্তমানে প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব টটেনহামের ম্যানেজার। ২০১১-১২ মৌসুমে রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে লা লিগা জেতার আট বছর উপলক্ষে তার একটি সাক্ষাৎকার নিয়েছে মাদ্রিদভিত্তিক ক্রীড়া দৈনিক মার্কা। দীর্ঘ আলাপনের সংক্ষিপ্ত ভাষ্য রইল এখানে-

লন্ডনে করোনার দিনকাল কেমন চলছে?

মরিনহো :আমি এখন ঘরে বসে ফুটবলই দেখছি শুধু। সত্যি বলতে কী, আগে কখনও এত বেশি দেখা হয়নি। এখন দেখে অন্য দল, কোচ সম্পর্কে বিশ্নেষণ করছি, বোঝার চেষ্টা করছি। আমি আসলে ফুটবলটাকে মিস করছি। পৃথিবীকে মিস করছি। আমাদের এখন ধৈর্য্য ধরার সময়, সতর্ক থাকার সময়।

থমকে যাওয়া মৌসুম নিয়ে কী বলবেন, কী আছে সামনে?

মরিনহো :বাকি ৯টি ম্যাচ খেলতে পারলে সবারই ভালো লাগবে। খেলা হওয়াটা ফুটবলের জন্য ভালো, প্রিমিয়ার লিগের জন্য ভালো। খেলা হলে ভালোই হবে।

গ্যালারিতে যে দর্শক থাকবে না…

মরিনহো :আমি মনে করি না ফুটবল কখনও ক্লোজড ডোরে হয় বা হবে। কারণ, স্টেডিয়ামে টিভি ক্যামেরা থাকবে, যার ফলে লাখ লাখ মানুষ মাঠে কী হচ্ছে দেখতে পারবে। ফাঁকা গ্যালারির সামনে খেলতে নামলেও আমার কাছে সবকিছু ফাঁকা লাগবে না।

আপনার ক্লাব টটেনহাম করোনাভাইরাস লড়াইয়ে থাকা রোগী, নার্সদের জন্য স্টেডিয়াম খুলে দিয়েছে…

মরিনহো :হ্যাঁ, এটি চমৎকার কাজ হয়েছে। আপনি মনে করে দেখুন একটি সাধারণ দিনের কথা। যখন এখানে আপনি ম্যাচ-পূর্ব আলোচনা করছেন, পরিকল্পনা সাজাচ্ছেন…আর এখন যদি আপনি দেখেন, আপনার সেই অবকাঠামো বা সরঞ্জামাদি এখন অবিশ্বাস্য এক উপলক্ষে ব্যবহূত হচ্ছে। ব্যাপারটা ভাবতেই ভালো লাগা কাজ করে।

এবার আপনার রিয়াল মাদ্রিদে কোচিং করানোর প্রসঙ্গে আসা যাক। আট বছর আগে আপনি লা লিগা জিতেছিলেন, ২০১১-১২ মৌসুমে। স্পেনের ফুটবলে সর্বোচ্চ পয়েন্ট, সর্বোচ্চ গোল হয়েছিল ওই সময়। ওটাই কি আপনার ক্যারিয়ারের সর্বোচ্চ চূড়া ছিল?

মরিনহো :এটা বলা কঠিন। তবে এটা বলতে পারি যে, ওই শিরোপা জয়টা আমার ক্যারিয়ারের গুরুত্বপূর্ণ একটি মুহূর্ত ছিল। বিশেষ করে বার্সেলোনা যখন দাপুটে ফুটবল খেলছিল। এমন সময়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার চেয়ে বেশি আনন্দদায়ক ছিল যেভাবে চ্যাম্পিয়ন হয়েছি, সেটা।

খেলার প্রতিনিধি বলে মনে করেন?

মরিনহো :আমি ব্যক্তিকে নিয়ে কথা বলতে পছন্দ করি না। ক্রিশ্চিয়ানোকে নিয়েও নয়, অন্যদের নিয়েও নয়। সব খেলোয়াড়ই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ, সবারই ভিন্ন ভিন্ন দায়িত্ব থাকে। সবাই জেতার জন্য খেলে, ট্রফির জন্য খেলে।

শেয়ার করুন

আরো খবর