শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ১২:০৮ পূর্বাহ্ন

ভারতের অন্যরকম এক করোনাযোদ্ধা সেলিনা

অনলাইন ডেস্ক:
  • আপডেট সময় রবিবার, ১৭ মে, ২০২০
  • ১১১

সেলিনা বেগম পেশায় অ্যাম্বুলেন্স চালক। অভাবের সংসারে জ্ঞান হওয়ার পর থেকে জীবনের সঙ্গে যুদ্ধ করে চলেছেন।
ভারতের উত্তর দিনাজপুরের হেমতাবাদ ব্লক স্বাস্থ্যকেন্দ্রের অ্যাম্বুল্যান্স চালান তিনি। কোভিড-১৯ মোকাবিলায় প্রথম থেকেই এক্সিলেটরে চাপ দিয়ে ছুটে চলেছেন গাড়ি নিয়ে। ভয় পাননি। তবে বাসায় বাবা-মাকে বলেননি সে কথা। অসুস্থ বাবা-মার যদি কিছু হয়ে যায়!
জীবনটাই তার কাছে মস্ত বড় এক যুদ্ধক্ষেত্র। পিছপা হননি কখনও। তাই যখন ডাক এল করোনা যুদ্ধে শামিল হওয়ার, দ্বিতীয়বার ভাবেননি সেলিনা বেগম।
কখনও ব্লক স্বাস্থ্য কেন্দ্র থেকে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার কিংবা রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজ, আবার কখনও কোয়ারেন্টাইন থেকে হাসপাতালে রোগী নিয়ে ছুটছেন। সুরক্ষা সরঞ্জাম বলতে মাস্ক, টুপি, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও একটি রেইন কোট। রোগীকে নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছে দিয়েই স্যানিটাইজ করে নিচ্ছেন নিজের অ্যাম্বুলেন্স। প্রথম দিকে খানিকটা দ্বিধা থাকলেও এখন তা কেটে গিয়েছে। বেড়েছে আত্মবিশ্বাসও।
অনটনের সংসারে পেটের ভাত জোটাতে হাতে ধরেছেন যে বাহনটির স্টিয়ারিং, সেটি আসলে একটা মাতৃযান। প্রসূতিদের বাড়ি থেকে হাসপাতালে পৌঁছে দেওয়াই তার কাজ। তবে জরুরি প্রয়োজনে যে কোনও অসুস্থ ব্যক্তিকেই হাসপাতালে নিয়ে ছোটেন বাংলায় এমএ পাশ ২৬ বছর বয়সের এই তরুণী। সূত্র : এইসময়, এশিয়ানেট নিউজবাংলা।

শেয়ার করুন

আরো খবর