রবিবার, ২০ জুন ২০২১, ০৭:০০ পূর্বাহ্ন

চাঁদা না পেয়ে স্ত্রী-মায়ের সামনেই যুবককে কুপিয়ে হত্যা

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি:
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ১০ জুন, ২০২১
  • ১৭

মুন্সীগঞ্জের সদরে চাঁদা না পেয়ে স্ত্রী ও মায়ের সামনেই নয়ন মিজি (৩৩) নামের এক যুবককে মারধর ও কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় কয়েকজন ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বুধবার (৯ জুন) বিকেলে উপজেলার কাজী কসবা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। বৃহস্পতিবার (১০ জুন) বেলা ১১টার দিকে ঢাকার জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নয়নের মৃত্যু হয়।

নিহত নয়ন স্থানীয় রামপাল ইউনিয়নের উত্তর কাজী কসবা এলাকার মৃত বাতেন মিজির ছেলে।

জানা যায়, সম্প্রতি নয়ন কাজী কসবা এলাকায় হাঁস-মুরগির একটি খামার তৈরি করলে রামপাল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রান্ত শেখ ও ছাত্রলীগ নেতা শোভন তালুকদার তার কাছে চাঁদা চান। তবে চাঁদা না দেয়ায় নয়নের সঙ্গে ওই ছাত্রলীগের নেতাদের বিরোধ চলছিলো।

এ ঘটনার জেরে বুধবার বিকেলে কাজী কসবা এলাকার একটি পেপার মিলের সামনে নয়নকে পেয়ে ছাত্রলীগের প্রান্ত শেখ, শোভন, চঞ্চল, রনি, কাঞ্চনসহ ৭-৮ জন রড ও দেশিয় অস্ত্র দিয়ে মারধর করতে থাকেন। খবর পেয়ে নয়নের মা রাশিদা বেগম ও স্ত্রী ঘটনাস্থলে ছুটে গেলে তাদের সামনেই চাপাতি দিয়ে নয়নকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করা হয়। এসময় নয়নকে বাঁচাতে চিৎকার করলে তার স্ত্রীকেও মারধর করেন প্রান্ত-শোভন।

পরে মারধরকারীরা নয়নকে মোটরসাইকেলে বেঁধে টেনেহেঁচড়ে নিয়ে রাস্তার অদূরে ফেলে যান। সেখান থেকে মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবিনতি হওয়ায় ঢাকায় পাঠিয়ে দেয়া হয়। বুধবার রাতে তাকে জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতালে ভর্তি করা হলে বৃহস্পতিবার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

মুন্সিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মিনহাজ আবেদিন বলেন, এ ঘটনায় প্রথমে মারামারির অভিযোগ ও পরেন হত্যা মামলা হয়েছে। এজাহারনামীয় ৯ জন আসামির মধ্যে দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

আরো পড়ুন:
রাজধানীতে কিশোর গ্যাংয়ের ১৮ সদস্য আটক
https://www.youtube.com/watch?v=vIUA7qq248k

শেয়ার করুন

আরো খবর