রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ০৯:৩০ পূর্বাহ্ন

যান চলাচলের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত স্বপ্নের পদ্মা সেতু

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ২৬ মে, ২০২২
  • ২৫
যান চলাচলের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত স্বপ্নের পদ্মা সেতু

মুন্সীগঞ্জ থেকে মমিন বিশ্বাস : স্বপ্নের পদ্মা সেতুর মূল অংশের পিচ ঢালাই শেষে বাকি ছিলো দুই পাড়ের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাই। সময়ের সাথে দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলে সে কাজ। কর্মের ধারাবাহিকতায় এবার শেষ হলো দুইপাড়ের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাই। এখন যানচলাচলের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত স্বপ্নের পদ্মা সেতু। গত সোমবার (২৩ মে) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে সর্বশেষ জাজিরা অংশের সংযোগ সড়কের (সাউথ ভায়াডাক্ট) পিচ ঢালাইয়ের কাজ শেষ করেছেন সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলী ও নির্মাণ শ্রমিকরা। পুরো সেতুর পিচ ঢালাই শেষ হওয়ায় এখন যান চলাচলের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত স্বপ্নের পদ্মা সেতুর সড়কপথ। পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী (মূল সেতু) দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

প্রকৌশলী সূত্রে জানা যায়, যান চলাচলের উপযোগী করে তুলতে সেতুতে পিচ ঢালাইয়ের কাজ শুরু হয়েছিল গত বছরের ১০ নবেম্বর। ৫ মাস ১৯ দিনের মাথায় গত ২৯ এপ্রিল মূল সেতুর ৬ দশমিক ১৫ কিলো মিটার ও সেতুর মূল অংশে সে কাজ শেষ হয়। এরপরই, সমানতালে শুরু হয় দুই পাড়ের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাই। বৃহস্পতিবার (১৯ মে) সন্ধ্যায় শেষ হয় পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাই এর কাজও। সর্বশেষ সোমবার (২৩ মে) জাজিরা প্রান্তের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাইয়ের কাজও শেষ হলো। এদিকে সেতুর অবশিষ্ট কাজের মধ্যে রোড মার্কিং ও সেতুকে আলোকিত করতে বসানো ৪১৫টি ল্যাম্পপোস্টে বিদ্যুৎ সংযোগের কাজ চলছে এখন পুরোদমে। শুরু হয়েছে রেলিং বসানোর কাজ।

প্রকৌশলী সূত্রে আরও জানা গেছে, চলতি মাসের মধ্যেই শেষ হবে রোড মার্কিংয়ের কাজ। আর পহেলা জুনে সেতু আলোকিত করার লক্ষ্য নিয়ে কাজ এগুচ্ছে বিদ্যুৎ সংযোগের কাজ। পরিকল্পনা মতো কাজ এগুলে নির্ধারিত সময় অর্থাৎ পহেলা জুনেই জ্বলে উঠবে বাতিগুলো। প্রসঙ্গত, খরস্রোতা পদ্মা নদীর উপর ৩০ হাজার ১৯৩ কোটি টাকার নিজস্ব অর্থায়নে নির্মিত হচ্ছে স্বপ্নের পদ্মা সেতু। ২০১৪ সালে নির্মাণ কাজ শুরু হওয়া দ্বিতল এ সেতুর সড়কপথ ২৫ জুন যান চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সড়ক ও পরিবহনমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আরো পড়ুন : সংলাপের আড়ালে বিএনপি ও অপশক্তির গভীর ষড়যন্ত্র : কাদের

শেয়ার করুন

আরো খবর