শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১:০৬ অপরাহ্ন

শরীয়তপুর থেকে অপহরণ হওয়া স্কুল ছাত্রী সাতক্ষীরা সীমান্ত থেকে উদ্ধার

শরীয়তপুর প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ৭ জুন, ২০২২
  • ১৭
শরীয়তপুর থেকে অপহরণ হওয়া স্কুল ছাত্রী সাতক্ষীরা সীমান্ত থেকে উদ্ধার

প্রেমের ফাঁদে ফেলে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ভারতে পাচারের চেষ্টাকালে পুলিশের তৎপরতায় ওই স্কুলছাত্রী উদ্ধার হয়েছে। তবে গ্রেফতার হয়নি অভিযুক্ত সুমন হোসেন ও তার পরিবার। সুমন সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার ঢেবুখালীর আব্দুর সবুর সরদারের মেঝ ছেলে। ভুক্তভোগী স্কুল ছাত্রী শরীয়তপুর জেলার জাজিরা থানার জয়নগর এলাকার বাসিন্দা ।রোববার সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজ রহমানের তদারকিতে দেবহাটা থানা পুলিশ দিনভর তৎপরতা চালিয়ে সন্ধ্যায় ওই স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করে। এব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ভুক্তভোগী স্কুল ছাত্রীর মা বলের, গত বৃহস্পতিবার ( ২জুন) সকালে আমার মেয়ে স্কুলে পরিক্ষা দিতে যায় কিন্তু বিকাল হলেও বাড়িতে ফেরেনি। অনেক খোঁজা খুজির পর জাজিরা থানায় জিডি করি। পরবর্তীতে পুলিশের তৎপরতায় গোপনসূত্রে জানতে পারি আমার মেয়েকে ভারতে পাচারের জন্য দেবহাটা উপজেলা ঢেবুখালী আব্দুর সবুর সরদার, ছেলে সুমন হোসেন, মেয়ে জামাই সাহেব আলী সরদার মিলে তার বাড়িতে রেখেছে।

তিনি বলেন, পুলিশ আতাপুর গ্রামে সুমনের ভগ্নীপতি সাহেব আলী সরদার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে উদ্ধারে ব্যর্থ হয়। পরবর্ততে সন্ধ্যায় দেবহাটার সিমান্ত এলাকা থেকে আমার মেয়েকে উদ্ধার করে আমাদের কাছে হস্তান্তর করেন। আমি সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার, দেবহাটা থানার ওসিসহ সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মতর্কাদের ধন্যবাদ জানাই। আমরা এঘটনায় মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

দেবহাটা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ ওবায়দুল্লাহ জানান, পুলিশ সুপার মহোদয় আমাকে শরীয়তপুর জেলার জাজিরা থানা এলাকা থেকে হারিয়ে যাওয়া আষ্টম শ্রেণী ছাত্রী দেবহাটা থানা এলাকায় আছে বলে জানায় এবং তাকে উদ্ধারের নির্দেশ দেয়। আমিসহ দেবহাটা থানার পুলিশ সদস্যরা মাঠে নেমে টানা ৭ ঘন্টা অভিযানের পর স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছি।

আরো পড়ুন :শোষিত-বঞ্চিত মানুষের মুক্তির সনদ ছিল ৬ দফা: প্রধানমন্ত্রী

শেয়ার করুন

আরো খবর