বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ০৯:৩৪ পূর্বাহ্ন

সাতক্ষীরায় ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় সভা

ক্রাইম এক্সপ্রেস ডেস্ক :
  • আপডেট সময় সোমবার, ১৮ মে, ২০২০
  • ২০৮

সাতক্ষীরায় জেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির জরুরি সভা হয়েছে। ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের প্রভাবে সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি মোকাবিলায় করণীয় নির্ধারণে রোববার (১৭ মে) রাতে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়।

জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামালের সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরা-২ আসনের সংসদ সদস্য মীর মোস্তাক আহম্মেদ রবি, সাতক্ষীরা-১ আসনের সংসদ সদস্য মোস্তফা লুৎফুল্লাহ, পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুনসুর আহমেদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন হুসাইন শায়ায়েত, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক হুসাইন শওকতসহ বিভিন্ন সরকারি এবং বেসরকারি উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তারা।

জেলা প্রশাসক বলেন, উপকুলের বেড়িবাঁধের মধ্যে ৩৭টি পয়েন্টে ঝুকিপূর্ণ আছে। এগুলো সার্বক্ষণিক তদারকি করার জন্য জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এছাড়া ১৪৭টি সাইক্লোন শেল্টার প্রস্তুত রাখা হয়েছে। সেখানে আজকের (সোমবার, ১৮ মে) বিকেলে মধ্যে ঝুকিপূর্ণ এলাকার বাসিন্দাদের আশ্রয় নেওয়ার জন্য স্থানীয় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এছাড়া উপদ্রুত এলাকায় ১ হাজার ৭৯৬টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা রাখা হয়েছে। সেগুলোকে ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহার করা হবে।

তিনি জানান, ইতোমধ্যে উদ্ধারকারী দল উপকূল এলাকায় পৌঁছে গেছে। তারা এলাকার নারী, শিশু ও বয়োবৃদ্ধদের আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে আসার কাজ শুরু করেছেন। সামাজিক দূরত্ব বাজায় রেখে উপদ্রুত এলাকার মানুষকে আশ্রয়কেন্দ্রে থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে। ঘূর্ণিঝড় আম্ফান মোকাবিলায় পুলিশ, র‌্যাব, কোস্টগার্ড, বিজিবি সহায়তা করছে। প্রয়োজনে অন্যবাহিনীর সদস্যদেরও সম্পৃক্ত করা হবে।

উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে আশ্রয়কেন্দ্রে চলে আসা মানুষের জন্য প্রয়োজনীয় খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

রোববার (১৭ মে) মধ্যরাতে আবহাওয়ার বিশেষ বুলেটিনে জানানো হয়েছে, দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থানরত অতিপ্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘আম্ফান’ সামান্য উত্তর দিকে অগ্রসর হয়ে একই এলাকায় অবস্থান করছে। চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরকে ৪ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

শেয়ার করুন

আরো খবর