বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ০৪:৪০ পূর্বাহ্ন

সুন্দরবনের বাঘের সংখ্যা বাড়ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক:
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ৭ মে, ২০২০
  • ৯৬
সুন্দরবনের ভারতীয় অংশে ২০১৬ সালের পর এবারই প্রথম বারের মতো এক বছরে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক বাঘ বেড়েছে। পশ্চিমবঙ্গ বন বিভাগের প্রকাশ করা ২০১৯-২০২০ বছরের বাঘ গণনা জরিপে এই চিত্র উঠে এসেছে। এতে দেখা গেছে ২০১৯ সালের তুলনায় বাঘের সংখ্যা বেড়েছে আটটি। এনিয়ে সুন্দরবনের ভারতীয় অংশে মোট বাঘের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯৬টিতে। দেশটির সম্প্রচারমাধ্যম জিনিউজের ওয়েবসাইটের খবরে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

বিশ্বের সর্ববৃহৎ ম্যানগ্রোভ বনাঞ্চল সুন্দরবন। বাংলাদেশ ও ভারতের অংশ বিশেষ জুড়ে বিস্তৃত এই বনাঞ্চলই পৃথিবীর একমাত্র ম্যানগ্রোভ এলাকা যেখোনে বাঘের বসতি আছে। সুন্দরবনের ভারতীয় অংশ দুটি বিভাগ নিয়ে বিস্তৃত। এর একটি সুন্দরবন টাইগার রিজার্ভ ও অন্যটি ২৪ পরগণা (দক্ষিণ) বিভাগ।

ভারতের জাতীয় বাঘ সংরক্ষণ কর্তৃপক্ষের (এনটিসিএ) হিসেবে ২০১০ সালে প্রথমবারের মতো বাঘ গণনা চালানো হয়। ২০১২ সাল থেকে কয়েকটি বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থার সহায়তায় বন বিভাগ এনটিসিএ’র নির্দেশনা অনুসরণ করে বাঘ জরিপ চালিয়ে থাকে। বাঘ গণনায় ব্যবহার করা হয়েছে ক্যামেরা ট্রাপিং প্রযুক্তি। ফলে একটি বাঘ একাধিকবার গণনার সুযোগ সীমিত।

২০১৬-১৭ সালে সুন্দরবনের ভারতীয় অংশে মোট ৮১টি বাঘ ছিলো। ২০১৭-১৮ সালে ছয়টি বেড়ে মোট এই সংখ্যা দাঁড়ায় ৮৭টিতে। পরের বছর মাত্র একটি বাঘ বাড়লেও এবারে বাঘের সংখ্যা বেড়েছে আটটি। ফলে মোট সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯৬টিতে। আর সুন্দরবনের পরিবেশ স্বাস্থ্যকর থাকায় আগামী বছর বাঘের সংখ্যা আরও বাড়বে বলে আশা প্রকাশ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের বনমন্ত্রী রাজীব বন্দোপাধ্যায়।

সুন্দরবনের বাঘের সংখ্যা বেড়ে যাওয়াকে ইতিবাচক আখ্যা দিয়ে রাজীব বন্দোপাধ্যায় বলেন, ‘এ থেকে বোঝা যায়, সুন্দরবনের প্রাণীরা যথেষ্ট সুরক্ষিত। সুন্দরবনের চার হাজার দুইশো বর্গ কিলোমিটার এলাকার মধ্যে তিন হাজার সাতশো বর্গ কিলোমিটার এলাকায় বাঘের বিচরণ রয়েছে। বাঘ বাড়াতে গেলে আগামী দিনে ম্যানগ্রোভ বন বাড়াতে হবে।’

শেয়ার করুন

আরো খবর