বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ০৪:৪৩ পূর্বাহ্ন

স্বতন্ত্র পরিচালকদের প্যানেল গঠনের সিদ্ধান্ত: বিএসইসি

ক্রাইম এক্সপ্রেস ডেস্ক :
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২০
  • ১২১

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানির স্বতন্ত্র পরিচালক নিয়োগের জন্য একটি প্যানেল গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটি শেষে করপোরেট গভর্ন্যান্স কোডের ভিত্তিতে এ স্বতন্ত্র পরিচালকদের যোগ্যতা ও মানদণ্ড নির্ধারণ করে প্যানেলটি গঠন করা হবে। বিএসইসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. এম খায়রুল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ৭২৫তম কমিশন সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

প্রসঙ্গত, বিএসইসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. এম খায়রুল হোসেনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ১৪ই মে। অন্যদিকে কমিশনার অধ্যাপক হেলাল উদ্দীন নিজামীর মেয়াদ শেষ হচ্ছে ২রা মে। সে হিসেবে গতকাল বুধবারের সভাটিই ছিল বর্তমান কমিশনের শেষ সভা।

সভায় স্বতন্ত্র পরিচালকের প্যানেল গঠনের সিদ্ধান্ত গ্রহণের পাশাপাশি একটি মিউচুয়াল ফান্ডের প্রসপেক্টাস অনুমোদন, একটি তালিকাভুক্ত কোম্পানিকে সতর্ক করাসহ বেশ কয়েকটি বিধি অনুমোদন করা হয়েছে।

কমিশন সভা শেষে বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. সাইফুর রহমান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সভায় মেয়াদবিহীন ভিআইপিবি ব্যালান্সড ফান্ডের খসড়া প্রসপেক্টাস অনুমোদন করা হয়েছে। তহবিলটির প্রাথমিক লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ১০ কোটি টাকা। এর মধ্যে উদ্যোক্তাদের জন্য ১ কোটি এবং এর বাইরে সব বিনিয়োগকারীর জন্য মোট ৯ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা রয়েছে।

ফান্ডটির ইউনিটপ্রতি অভিহিত মূল্য ধরা হয়েছে ১০ টাকা করে। এর উদ্যোক্তা ও সম্পদ ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব পাচ্ছে ভিআইপিবি অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি লিমিটেড। ফান্ডটির ট্রাস্টি সন্ধানী লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড এবং কাস্টডিয়ান ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড।

গকমিশন সভায় ৩১শে ডিসেম্বর সমাপ্ত ২০১৪ হিসাব বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন এবং ৩১শে মার্চ ২০১৫ তারিখে সমাপ্ত ত্রৈমাসিক প্রতিবেদন কমিশনের কাছে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে জমা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় প্রগ্রেসিভ লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানিকে সতর্ক করা হয়।

এছাড়া সভায় বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন রুলস-২০১৮-এর (কোয়ালিফায়েড ইনভেস্টর অফার বাই স্মল ক্যাপিটাল কোম্পানিজ) সংশোধনী প্রস্তাবেও কিছু পরিবর্তন সাপেক্ষে অনুমোদন দেয়া হয়েছে। সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটি শেষে বিধিমালাটি জনমত যাচাইয়ের জন্য সংবাদমাধ্যম ও কমিশনের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে।

এছাড়া বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন রুলস-২০১৫-এর (অল্টারনেটিভ ইনভেস্টমেন্ট) সংশোধনীও জনমত জরিপ শেষে কমিশন সভায় অনুমোদন করা হয়। সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটি শেষে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে। সভায় বিএসইসি রুলস-২০২০-এর (ডেবট সিকিউরিটি) খসড়া ছুটি শেষে জনমত যাচাইয়ের জন্য সংবাদমাধ্যম ও কমিশনের ওয়েবসাইটে প্রকাশের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

কমিশন এর বাইরেও বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন বিধিমালা-২০২০-এর (ট্রেডিং রাইট এনটাইটেলমেন্ট সার্টিফিকেট) খসড়া জনমত যাচাইয়ের নতুন সময়সীমা নির্ধারণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ছুটির কারণে বিধিমালাটির খসড়া গেজেটে প্রকাশ করা সম্ভব হয়নি এবং এরই মধ্যে জনমত যাচাইয়ের সময়ও শেষ হয়ে গেছে।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি এ বিধিমালার খসড়ার বিষয়ে আপত্তি জানায় ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্রোকারদের সংগঠন ডিবিএ। সংগঠনটি খসড়ার বিষয়ে কমিশনের কাছে আপত্তি না পাঠালে ডিএসইর বিদ্যমান পর্ষদকে বিশেষ সাধারণ সভা (ইজিএম) আহ্বান করে অপসারণ করা হবে বলে আইনি নোটিস দিয়েছে। তাছাড়া এ-সংক্রান্ত বিধিমালা প্রণয়নে বিএসইসির এখতিয়ার নিয়েও প্রশ্ন তুলেছে ডিবিএ।

শেয়ার করুন

আরো খবর