সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ০৮:২১ অপরাহ্ন

হোস্টেলে ছাত্রী আটকা, ইউটিলিটি সার্ভিস বন্ধ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় শনিবার, ২ মে, ২০২০
  • ১১৪
গণপরিবহন বন্ধ থাকায় রাজধানীর ধানমন্ডির শঙ্কর বাস্ট্যান্ড সংলগ্ন নিবেদিকা ছাত্রী হোস্টেলে তীতুমীর কলেজের এক শিক্ষার্থী আটকা পড়েছেন। হোস্টেল কর্তৃপক্ষের কাছে বাড়িভাড়া বকেয়া থাকায় হোস্টেলের ইউটিলিটি সার্ভিস বন্ধ করে দিয়েছেন বাড়িওয়ালা। আর আটকা পড়া ওই ছাত্রীকে হোস্টেল ছেড়ে ট্রাকে করে বাড়িতে যেতে বলেছেন বাড়িওয়ালা।শনিবার (২ মে) দুপুরে তীতুমীর কলেজের ওই ছাত্রী অভিযোগ করে বলেন,  ‘আমি ফেব্রুয়ারিতে এই হোস্টেলে উঠেছি। লকডাউনের কারণে আমি বাড়িতে যেতে পারিনি। হোস্টেলেই আছি।  লকডাউনের কারণে হোস্টেল কর্তৃপক্ষ কেউ এখানে নেই। আমি রান্না করেই খাচ্চ্ছি। পাঁচতলা ভবনের প্রথম দুটি ফ্লোরে হোস্টেল। তৃতীয় তলায় বাড়ির মালিক এবং চতুর্থ ও পঞ্চম তলায় বাড়ির মালিক পরিচালিত ছাত্রীদের মেস রয়েছে। নিবেদিকা ছাত্রী হোস্টেল ৪০-৫০ জন ছিলেন। সবাই লকডাউনের কারণে চলে গেছেন। ’তিনি আরও করেন, ‘বাড়িওয়ালা হোস্টেল কর্তৃপক্ষের কাছে নাকি ভাড়া পাবেন। আমার কাছে ভাড়া চাচ্ছেন। আমি বলছি, আমি তো হোস্টেল কর্তৃপক্ষকে ভাড়া দেবো। কিন্তু তিনি আমার কোনও কথাই শুনছেন না। হোস্টেলের ইউটিলিটি সার্ভিস বন্ধ করে দিয়েছে। হোস্টেলের ফ্রিজ বন্ধ করে দিয়েছে। আমি এখন কী খাবো কোথায় যাবো বুঝতেছি না। নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।’

এ বিষয়ে নিবেদিকা হোস্টেলের ম্যানেজার নাজনীন  বলেন, ‘শঙ্করে আমাদের নিবেদিকা হোস্টেলের কোনও ব্রাঞ্চ নেই। ওই আটকা পড়া ছাত্রীর নাম বললেও তিনি চিনেন না।’

এ বিষয়ে জানতে বাড়িওয়ালেক কয়েকবার ফোন ও মেসেজ দিয়েও কোনও উত্তর দেননি।

ধানমন্ডি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ন কবির বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

শেয়ার করুন

আরো খবর